চট্টগ্রাম, , সোমবার, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

দোহাজারী পৌরসভা আ.লীগের উদ্যোগে বঙ্গবন্ধুর শাহাদাত বার্ষিকী পালিত

প্রকাশ: ২০১৭-০৮-১৭ ২১:৪৮:৩০ || আপডেট: ২০১৭-০৮-১৭ ২১:৪৮:৫৫

দক্ষিণ চট্টগ্রামের দোহাজারী পৌরসভায় জাতীয় শোক দিবস ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪২ তম শাহাদাত বার্ষিকী দোহাজারী পৌরসভা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে যথাযোগ্য মর্যাদায় নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে গত মঙ্গলবার পালিত হয়েছে। কর্মসূচির মধ্যে ছিলো, সকাল ১০ টায় জাতীয় পতাকা ও কালো পতাকা উত্তোলন, বেলা ১১ টায় বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ, বেলা ১২ টায় দোহাজারী শাহী জামে মসজিদে খতমে কোরআন, মিলাদ ও দোয়া মাহফিল, বিকাল ৪ টায় দোহাজারী জামিজুরী আঃ রহমান উচ্চ বিদ্যালয়ের হলরুমে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্মরণে আলোচনা সভা শেষে কাঙালি ভোজ। দোহাজারী আ.লীগ সভাপতি আব্দুস্ শুক্কুরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম-১৪ আসনের সংসদ সদস্য, জাতীয় সংসদের প্যানেল স্পীকার, বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব নজরুল ইসলাম চৌধুরী এম.পি। দোহাজারী আ.লীগ সাধারণ সম্পাদক বশির উদ্দীন খান মুরাদের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন চন্দনাইশ উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আব্দুল জব্বার চৌধুরী, চন্দনাইশ পৌরসভা মেয়র মাহবুবুল আলম খোকা, চট্টগ্রাম জেলা পরিষদ সদস্য ও চন্দনাইশ উপজেলা আ.লীগ সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব আবু আহমদ চৌধুরী জুনু, উপজেলা আ.লীগ সাংগঠনিক সম্পাদক এম.বাবর আলী ইনু, শাখাওয়াত হোসেন শিবলী, বিলুপ্ত ঘোষিত দোহাজারী ইউ.পি’র সাবেক চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ্ আল নোমান বেগ। অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জোয়ারা ইউ.পি চেয়ারম্যান আমিন আহম্মদ চৌধুরী রোকন, সাবেক জাতীয় ফুটবলার আসকর খান বাবু, উপজেলা যুবলীগ নেতা এরশাদুর রহমান সুমন, শওকত খান, সাবেক ছাত্রনেতা হেলাল মাহমুদ, মিন্টু, শহীদ, রিমন, মিঠু, মোজাম্মেল হক মিন্টু প্রমুখ। সভায় বক্তারা বলেন, জাতীয় ইতিহাসে বঙ্গবন্ধুর অবদান অপরিসীম। যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশে বঙ্গবন্ধু যখন জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করে সোনার বাংলা গড়ার সংগ্রামে নিয়োজিত ঠিক তখনই ঘাতকচক্র তাঁকে হত্যা করে। বঙ্গবন্ধুর রক্তাক্ত সোনার বাংলা ধীরে ধীরে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে উন্নয়ন ও সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে চলেছে। যেসব অপশক্তি বাংলাদেশকে জঙ্গি ও তালেবান রাষ্ট্র বানানোর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত তারা জানেনা এদেশের মানুষ মহান মুক্তিযুদ্ধে অর্জিত এই সোনার বাংলাদেশকে কখনো জঙ্গি রাষ্ট্র হতে দেবে না।

বক্তারা অবিলম্বে বঙ্গবন্ধুর দন্ডপ্রাপ্ত খুনীদের দেশে ফিরিয়ে এনে তাদের ফাঁসির রায় কার্যকর করার দাবি জানান। পরে প্রায় দুই হাজার মানুষের কাঙ্গালি ভোজের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠান সমাপ্ত হয়।

আপনার মতামত দিন...

ক্যালেন্ডার এবং আর্কাইভ