চট্টগ্রাম, , বৃহস্পতিবার, ১৮ জানুয়ারী ২০১৮

চট্টগ্রামে হাত-পা বাঁধা আইনজীবীর লাশ উদ্ধার

প্রকাশ: ২০১৭-১১-২৫ ১৪:৫০:৩৩ || আপডেট: ২০১৭-১১-২৫ ১৫:৫৭:২৭

নগরীর একটি বাসা থেকে হাত-পা বাঁধা ও মুখে টেপ লাগানো অবস্থায় ওমর ফারুক বাপ্পী নামের এক আইনজীবির লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার সকালে চকবাজার থানার কে বি আমান আলী রোডে বড় মিয়া মসজিদের সামনে একটি ভবনের নিচতলার বাসা থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) পরিদর্শক সন্তোষ কুমার চাকমা বলেন, গত বৃহস্পতিবার এক নারী বাসাটি ভাড়া নিয়ে সেখানে উঠেন। তার নাম-ঠিকানা বাড়ির মালিক রাখেননি। শনিবার ভোরে দারোয়ান দেখতে পান, বাসার দরজা খোলা। ভেতরে গিয়ে তিনি একটি লাশ পড়ে থাকতে দেখেন। হাত-পা বাঁধা, মুখ টেপ দিয়ে মোড়ানো ও পুরুষাঙ্গ কাটা অবস্থায় লাশটি পাওয়া গেছে। মরদেহ উদ্ধারের সময় ওই বাসায় আর কাউকে পাওয়া যায়নি। আমরা রহস্য উদঘাটনের চেষ্টা করছি।

চট্টগ্রাম আদালতে আইন পেশায় আছেন বাপ্পী; আদালত সূত্র জানায়, ইয়াবা পাচার করতে গিয়ে পুলিশের হাতে ধরা পড়া এক সুন্দরী নারীকে জামিন করার আইনজীবি বাপ্পী। পরে ওই নারীকে বিয়েকে করেছিলেন তিনি। পরে ভরণপোষণ না দেয়ায় মেয়েটির সঙ্গে বিরোধ সৃষ্টি হয় তার। পরে চাপে পড়ে ওই নারীর সঙ্গে সম্পর্ক রেখে আসছিলেন বাপ্পী।

One Reply to “চট্টগ্রামে হাত-পা বাঁধা আইনজীবীর লাশ উদ্ধার”

  1. লোকটিকে আমি ব্যক্তিগতভাবে চিনি। আমার এলাকার বাসিন্দা।তিনি বান্দরবান জেলার অন্তর্গত আলীকদম থানার চৌমুহনী এলাকার স্থায়ী বাসিন্দা আলীকদম ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রাসার সম্মানিত শিক্ষক আলী আহাম্মদ স্যারের বড় পুত্র।

    এই জঘন্য ঘটনার সঠিক বিচার হবে কিনা আমি জানিনা।এমতাবস্থায় মরহুমের পরিবারের অবস্থা কেমন হবে তা বলার চেয়ে অনুভব করে নেয়াটা বোধয় ভালো হবে।

    প্রত্যন্ত গ্রামের সরল অভিবাবকগণ হত্যাকারীদের বিরুদ্ধে কোন মামলা করে কিনা তাও সন্দেহ।চকবাজার থানা পুলিশ কি এ ঘটনার সঠিক তদন্ত করবেন? হত্যাকারীদের আইনের আওতায় নিয়ে আসবেন?

    আমি জানিনা মরহুমের পরিবারের সিদ্ধান্ত কী? ওনারা
    এর বিরুদ্ধে কিরকম পদক্ষেপ নিচ্ছেন বা নিবেন।এই মুহুর্থে সকল সদস্যা অত্যান্ত মর্মাহত এবং শোকার্ত!

    এই পরিস্থিতে থানা পুলিশ কি ব্যবস্থা নিচ্ছে জানতে চাচ্ছি।

    দয়াকরে সিটজি টাইম কর্তৃপক্ষ খবরটি বিশেষভাবে হাইলাইট করুন যাতে খুনিরা যথাযথ শাস্তি পায়।
    ধন্যবাদ সিটিজি টাইমস্।

আপনার মতামত দিন....

ক্যালেন্ডার এবং আর্কাইভ