চট্টগ্রাম, , বুধবার, ১৭ জানুয়ারী ২০১৮

চট্টগ্রামে সাদার্ন ইউনিভার্সিটির ভর্তি কার্যক্রম বন্ধের নির্দেশ

প্রকাশ: ২০১৭-১২-১৯ ২৩:৪৮:৫৯ || আপডেট: ২০১৭-১২-২০ ২২:২৯:৪৩

চট্টগ্রামে প্রতিষ্ঠিত বেসরকারি সাদার্ন ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশের সব ক্যাম্পাসে শিক্ষার্থী ভর্তি কার্যক্রম বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন (ইউজিসি)। ইউজিসি সম্প্রতি এ সংক্রান্ত একটি চিঠি বিশ্ববিদ্যালয়টির রেজিস্ট্রারের বরাবরে প্রেরণ করেছে।

চিঠিতে সাদার্ন বিশ্ববিদ্যালয় অননুমোদিত ক্যাম্পাসে খোলার অভিযোগ, বোর্ড ট্রাস্ট্রিজের দ্বন্ধ ও আদালতে কয়েকটি মামলা বিচারাধীন থাকায় বিশ্ববিদ্যালয়টির ওপর ভর্তি কার্যক্রম বন্ধ রাখার নির্দেশনা জারি করা হয়েছে বলে ইউজিসি সূত্র জানায়।

সূত্রে বলা হয়, সাদার্ন ইউনিভার্সিটি ঘিরে উদ্ভূত বিষয়াবলি তদন্ত করে এ বিষয়ে প্রতিবেদন জমা দেয়ার জন্য শিক্ষামন্ত্রণালয় থেকে একটি চিঠি প্রেরণ করে নির্দেশনা দেয়া হয় মঞ্জুরী কমিশনকে। এর পরিপ্রেক্ষিতে বিশ্ববিদ্যালয়টির সকল ক্যাম্পাসে ভর্তি কার্যক্রম বন্ধের নির্দেশ দেয়া হয়।

এ প্রসঙ্গে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের বিশ্ববিদ্যালয় অনুবিভাগের উপসচিব (বেসরকারি বিদ্যালয়) জিন্নাত রেহানা সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, সাদার্ন ইউনিভার্সিটির সবকটি ক্যাম্পাস অননুমোদিত। এ নিয়ে আদালতে মামলা রয়েছে। এছাড়া বোর্ড ট্রাস্টিজ নিয়ে দ্বন্দ্বের ফলে শিক্ষার্থী ভর্তি নিয়ে দুটি গ্রুপ মুখোমুখি অবস্থানে রয়েছে।

তাই ইউজিসিকে এসব বিষয়ে তদন্ত করে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে। তদন্ত  সপন্ন ও মামলা নি®পত্তি না হওয়া পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়টির সব ক্যা¤পাসে শিক্ষার্থী ভর্তি কার্যক্রম বন্ধের জন্য নির্দেশ দিতে ইউজিসিকে বলা হয়েছে। সে মোতাবেক ইউজিসি ব্যবস্থা গ্রহণের লক্ষ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার বরাবরে চিঠি পাঠিয়েছে।

এ ব্যাপারে বিশ্ববিদ্যালয়টির ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার ড. মোজাম্মেল হক সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, বোর্ড ট্রাস্ট্রিজের দ্বন্ধ আছে ঠিকই। আদালতে মামলাও আছে। তবে এ নিয়ে ইউজিসির পাঠানো চিঠি নিয়ে আমরা অবগত নই। ভর্তি কার্যক্রম বন্ধের নির্দেশনা বিষয়ক কোনোরকম চিঠি আমরা এখনো হাতে পাইনি।

মামলা সম্পর্কে সাদার্ন ইউনিভার্সিটির প্রতিষ্ঠাতা সরওয়ার জাহান বলেন, আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের স¤পত্তির মালিকানা ও আউটার ক্যা¤পাসসহ বেশকিছু বিষয়ে মামলা রয়েছে। ষড়যন্ত্রকারী একটি চক্র নানাভাবে মামলা-মোকদ্দমা করে আমাদের শিক্ষা কার্যক্রম ব্যাহত করার চেষ্টা করছে।

তিনি আরও বলেন, একটি দুষ্টচক্র আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম ব্যবহার করে অবৈধভাবে বিভিন্ন আউটার ক্যা¤পাস পরিচালনা করে আসছিল। সেসব অবৈধ ক্যা¤পাস বন্ধে আমরা একটি মামলা দায়ের করি। ওই মামলার পরিপ্রেক্ষিতে ক্যাম্পাসগুলো বন্ধ করা হয়েছে। পাশাপাশি কিছু অসাধু লোককে শাস্তির আওতায়ও আনা হয়েছে। বর্তমানে শুধু মেহেদীবাগের মূল ক্যা¤পাসটিতে শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। এতে ভর্তি কার্যক্রম বন্ধের নির্দেশ সম্পূর্ণ অনাকাঙ্খিত।

এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে বিশ্ববিদ্যালয়টির জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. সাইদুল ইসলাম চৌধুরী সিটিজি টাইমসকে বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় নিয়ে নিউজ করতে চাইলে ফোনে সব কিছু বলা সম্ভব না। অফিসে আসেন ডকুমেন্ট দেখিয়ে কথা বলব।

এ বিষয়ে ইউজিসি চেয়ারম্যান অধ্যাপক আবদুল মান্নান সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা অনুযায়ী চিঠি দেয়া হয়েছে। তদন্ত কমিটি বিষয়গুলো যাচাই-বাছাই করে একটি প্রতিবেদন জমা দেবে। সে অনুযায়ী পরবর্তী নির্দেশনা আসবে। বিষয়টি তদন্ত করতে ইউজিসি সদস্য অধ্যাপক আকতার হোসেনকে প্রধান করে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, ইউজিসি প্রকাশিত সর্বশেষ বার্ষিক প্রতিবেদন অনুযায়ী, সাদার্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে বর্তমানে তিনটি অনুষদের অধীনে ১৯টি বিভাগ চালু রয়েছে। এসব বিভাগে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থী রয়েছেন ৪ হাজার ৮ জন। এর মধ্যে ছাত্রীর সংখ্যা ৯৯৪। এছাড়া শিক্ষক রয়েছেন ১৮৪ জন।

One Reply to “চট্টগ্রামে সাদার্ন ইউনিভার্সিটির ভর্তি কার্যক্রম বন্ধের নির্দেশ”

আপনার মতামত দিন....

ক্যালেন্ডার এবং আর্কাইভ

FriSatSunMonTueWedThu
   1234
19202122232425
262728293031 
       
    123
45678910
11121314151617