চট্টগ্রাম, , মঙ্গলবার, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

ভোটে যেতে চাই খালেদা, তবে ছয় শর্তে

প্রকাশ: ২০১৮-০২-০৩ ১৩:৩১:৪৪ || আপডেট: ২০১৮-০২-০৩ ১৩:৩৮:৩৫

নিম্ন আদালত এখন সরকারের কব্জায়, সঠিক রায় দেয়ার ক্ষমতা এখন আদালতের নেই ভলে মন্তব্য করে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া বলেছেন, মানুষ পরিবর্তন চায়। এই পরিবর্তন হতে হবে নির্বাচনের মাধ্যমে।

শনিবার (০৩ ফেব্রুয়ারি) রাজধানী হোটেল লা মেরিডিয়ানে আয়োজিত দলের জাতীয় নির্বাহী কমিটির সভায় তিনি এ কথা বলেন। সভায় খালেদা জিয়া একাদশ সংসদ নির্বাচনে অংশ নিতে শর্তগুলো তুলে ধরেন।

নির্বাচনে অংশ নিতে বিএনপির চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া শর্তগুলো হলো:

* ভোট হতে হবে নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে

* জনগণকে ভোটকেন্দ্রে আসার মতো পরিবেশ তৈরি করতে হবে

* ভোটের আগে সংসদ ভেঙে দিতে হবে

* নির্বাচন কমিশনকে নিরপেক্ষতা বজায় রেখে কাজ করতে হবে

* ভোটের সময় সেনাবাহিনী মোতায়েন করতে হবে, সেনাবাহিনী মোবাইল ফোর্স হিসেবে কাজ করবে

* যন্ত্রে ভোটের জন্য ইভিএম/ডিভিএম ব্যবহার করা যাবে না

সভায় ছয় শর্ত দেওয়ার পর খালেদা জিয়া নির্বাহী কমিটির সদস্যদের কাছে জানতে চান তারা এর সঙ্গে একমত কি না। এ সময় নির্বাহী কমিটির সদস্যরা উচ্চ স্বরে বলেন একমত।

 

বিএনপি চেয়ারপারসন বলেন, নির্বাচন থেকে দূরে রাখতেই মিথ্যা দুর্নীতির মামলা চালাচ্ছে সরকার। এই মামলায় আমার কোনো অপরাধ নেই, গায়ের জোরে বিচার করছে সরকার।

দলীয় নেতাকর্মীদের মতো প্রশাসনকে ব্যবহার করে গুম-খুন-নির্যাতনের মাধ্যমে দেশে ভীতিকর পরিস্থিতি তৈরি করেছে সরকার বলেও তিনি মন্তব্য করেন।

নেতাকর্মী‌দের উ‌দ্দে‌শ্যে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ব‌লেছেন, ‘দ‌লের স‌ঙ্গে বেঈমানী কর‌লে একবার ক্ষমা, বারবার নয়, আ‌মি আপনা‌দের স‌ঙ্গে আ‌ছি। আমা‌কে ভয় দে‌খি‌য়ে কোন লাভ হ‌বে না, আ‌মি দে‌শের মানু‌ষের স‌ঙ্গে আ‌ছি, আসুন সকলে মি‌লে এ দেশটা‌কে আমরা রক্ষা ক‌রি।’

বিএনপি চেয়ারপারসন বলেন, নির্বাচন থেকে দূরে রাখতেই মিথ্যা দুর্নীতির মামলা চালাচ্ছে সরকার। এই মামলায় আমার কোনো অপরাধ নেই, গায়ের জোরে বিচার করছে সরকার।

আপনার মতামত দিন...

ক্যালেন্ডার এবং আর্কাইভ