চট্টগ্রাম, , সোমবার, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

৮ ফেব্রুয়ারি পুলিশের পাশে থাকবে আ’লীগ: কাদের

প্রকাশ: ২০১৮-০২-০৬ ১৮:৪০:০৩ || আপডেট: ২০১৮-০২-০৬ ১৮:৪০:০৩

আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার রায় ঘিরে পরিস্থিতি মোকাবিলায় আওয়ামী লীগ পুলিশের পাশে থাকবে বলে জানিয়েছেন দলটির সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, ‘দেশের জনগণের জানমাল নিরাপত্তায় স্বার্থে প্রয়োজনে আমরা আইন শৃঙ্খলা বাহিনীকে সহযোগিতা করব। আমরা এখন ক্ষমতায় আছি। গায়ে পড়ে আমরা কেন দেশে অশান্তি ডেকে আনব?’

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘তারা যদি উস্কানি দেয়, হাইকোর্টের সামনে প্রিজন ভ্যানে হামলা চালানোর মত পরিস্থিতি সৃষ্টি করে তাহলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী পরিস্থিতি মোকাবিলা করবে। আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা তাদের সহযোগিতা করবে।’

মঙ্গলবার বিকেলে আওয়ামী লীগ সভাপতির ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের সম্পাদকমণ্ডলীর সঙ্গে সহযোগী সংগঠনের নেতাদের এক যৌথসভা শেষে তিনি সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আজ থেকেই আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা সতর্ক থাকবে। ৮ তারিখে আমাদের পক্ষ থেকে কোনো প্রকার উস্কানি যেন না দেয়া হয় সেই নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। হাইকোর্টের সামনে যারা এরকম হামলা করতে পারে তারা ৮ তারিখেও এই রকম ঘটনা ঘটাতে পারে। বিএনপির পক্ষে এটা অসম্ভব নয়।’

তিনি বলেন, ‘আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে তথ্য রয়েছে তারা দেশের বিভিন্ন স্থানে হামলা চালাতে পারে। যদি এরকম পরিস্থিতি সৃষ্টি করা হয় জনসাধারণকে নিয়ে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা আইন শৃঙ্খলাবাহিনীকে সহযোগিতা করবে।’

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘বেগম জিয়া আমাদের শত্রু নয়। বিএনপিও আমাদের শত্রু নয়। কিন্তু বিএনপি আমাদের শত্রু ভাবে। তা না হলে ১৫ আগস্ট খুনিদের মদদ দিত না। ২১ আগস্ট এই ধরনের হামলা করত না। বার বার আমাদের সাথে শত্রুতা করেছে। বিএনপি শত্রুতা ও প্রতিহিংসা রাজনীতি করে।’

তিনি বলেন, ‘ক্ষমতায় থাকলে কিছু না কিছু ভুল হবেই। আমরা ধোয়া তুলসী পাতা নই। এই দাবি আমরা করিও না। কিছু অনুপ্রবেশকারী দলের নামে অপপ্রচার করে। তারা কিন্তু ছাড় পাচ্ছে না। যেই অপরাধ করুক না কেন শাস্তি তাদের পেতেই হবে। ভালো কাজের জন্য পুরস্কার আর খারাপ কাজের জন্য তিরস্কার।’

এসময় উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ ও দীপু মনি, সাংগঠনিক সম্পাদক এনামুল হক শামীম ও খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হাছান মাহমুদ, কৃষি ও সমবায় সম্পাদক ফরিদুন্নাহার লাইলী, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, দফতর সম্পাদক আবদুস সোবাহান গোলাপ, বন ও পরিবেশ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন, বিজ্ঞান সম্পাদক আবদুস সবুর, উপ-দফতর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া, ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সভাপতি একেএম রহমতুল্লাহ, সাধারণ সম্পাদক সাদেক খান, ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ, সাধারণ সম্পাদক এসএম জাকির হোসাইন প্রমুখ।

আপনার মতামত দিন...

ক্যালেন্ডার এবং আর্কাইভ