চট্টগ্রাম, , সোমবার, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

চট্টগ্রামে মাঠ দখলে নিয়েছে আ.লীগ, দেখা মিলল না বিএনপি

প্রকাশ: ২০১৮-০২-০৭ ২৩:৩১:৫৪ || আপডেট: ২০১৮-০২-০৮ ১২:০৩:১৩

খালেদা জিয়ার মামলার রায়কে কেন্দ্র করে আগেভাগেই চট্টগ্রাম নগরীর মাঠ দখলে নিয়েছে আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগসহ দলের অন্যান্য অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠন। অন্যদিকে, মাঠে থাকার ঘোষণা দিলেও দেখা মিলছে না বিএনপি এবং এর অঙ্গসংগঠনগুলোর নেতাকর্মীদের।

এদিকে, বুধবার সন্ধ্যায় নগরীর চকবাজার থানাধীন বাকলিয়া গনি কলোনী এলাকায় যুবলীগের মিছিল থেকে যুবদল নেতার বাড়ীতে হামলা, ভাংচুর ও গুলি বর্ষনের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনা ঘটেছে। এসময় তিনজন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। আহতরা হলেন পিন্টু (৩৬),জাভেদ (৩৩), আরমান (২১)।

তবে, চকবাজার থানার ওসি মীর নুরুল হুদা বলেন, বিকালে ছাত্রলীগের একটি মিছিলে ঐ ভবন গুলো থেকে ঢিল ছোড়া হয়। এর পর ক্ষিপ্ত হয়ে ছাত্রলীগের ছেলেরা সেখানে পাল্টা ঢিল ছোড়ে। তিনি জানান দুটি ভবনই মহানগর যুবদলের নেতাদের। এ ব্যাপারে ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে মামলার প্রক্রিয়া চলছে বলেও তিনি জানান।

বুধবার চট্টগ্রাম নগরীর বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, নগরীর বিভিন্ন পয়েন্টে নগর আওয়ামী লীগ এবং ছাত্রলীগের ব্যানারে বিভিন্ন স্থানে মিছিল-সমাবেশ এবং শোডাউন হচ্ছে। খালেদা জিয়ার বিচার দাবি করে সন্ত্রাস ও নৈরাজ্যের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থানে থাকার ঘোষণা দিচ্ছেন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। অন্যদিকে নগরীর কোথাও বিএনপি এবং এর অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীদের দেখা মিলছে না।

চট্টগ্রাম নগরীর বাইরেও জেলার বিভিন্ন উপজেলায় আওয়ামী লীগ এবং এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা মোটরসাইকেল নিয়ে বিভিন্ন সড়কে শোডাউন করছেন বিকেলের পর থেকেই। চট্টগ্রামের রাউজান, রাঙ্গুনিয়া, ফটিকছড়ি, হাটহাজারীসহ বিভিন্ন উপজেলায় ছাত্রলীগ মিছিল-সমাবেশ এবং মোটরসাইকেল র‌্যালি করে শোডাউন করেছে। চট্টগ্রাম মহানগরীতে বিকেলে ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুল আজিম রনির নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিল করেছে মহানগর ছাত্রলীগ। একইভাবে আগামীকাল সকাল ১০টা থেকে নগরীর গুরুত্বপূর্ণ তিনটি পয়েন্টে ব্যাপক জনসমাগম করে অবস্থান করার ঘোষণা দিয়েছে ছাত্রলীগ। এসব পয়েন্টে হলো পুরাতন রেলওয়ে স্টেশন, কর্নেলহাট এবং মুরাদপুর মোড়।

আপনার মতামত দিন...

ক্যালেন্ডার এবং আর্কাইভ