চট্টগ্রাম, , সোমবার, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

এবারের বই মেলায় নজর কাড়বে ‘নিষিদ্ধকথক’

প্রকাশ: ২০১৮-০২-১৫ ১৯:৫০:২২ || আপডেট: ২০১৮-০২-১৫ ১৯:৫০:২২

প্রতিবছর ফেব্রুয়ারী মাস এলেই ঢাকায় শুরু হয় অমর একুশে প্রাণের বই মেলা। বই প্রেমি নানা শ্রেণি পেশার মানুষ বই মেলা থেকেই শখ করে বই কিনেন। আবার লেখকরাও অপেক্ষায় থাকেন, কখন বসছে বই মেলা। এক ছাদের নিচে অনেক বই একসাথে পাওয়া যায় বই মেলায়। তাই বই প্রেমিদের আগ্রহ একটু বেশি থাকে বই মেলার প্রতি। এবারের বই মেলায় তরুণ লেখক সালাহ্ উদ্দিন আহমেদ জুয়েল এর লিখা ‘নিষিদ্ধকথক’ বইটিও আসছে বাজারে। সহস্র ছোট ও অণুগল্প থেকে বাছাই করা ৪৫টি গল্পের সংকলন করা হয়েছে এই বইয়ে। প্রচার বিমুখ লেখক সালাহ্ উদ্দিন আহমেদ জুয়েল তার লিখা প্রথম বইটি বই প্রেমিদের খোরাক যোগাবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন।

‘নিষিদ্ধকথক’ বই সম্পর্কে লেখকের কাছের এক বন্ধু বলেন, সালাহ্ উদ্দিন আহমেদ জুয়েলের সহস্র ছোট ও অনুকল্প থেকে বাছাই করা ৪৫টি গল্পে সংকলন রয়েছে এ বইয়ে। বইয়ে “ভাই” ছোট গল্পটির শেষ লাইনটা এরকম- “কলিজারে ফাঁইড়া দুই ভাগ কইরা, কী মজাটা পাও তুমি! কইবা কুনোদিন?” এই আকুতি স্রষ্টার উদ্দেশ্য ছিল। ঠিক এই অনুভবটাই বহু বহুবার হয়েছে লেখকের বিভিন্ন লেখা পড়ার সময়। লেখাগুলো ধাক্কা দিয়ে জাগিয়েছে, প্রশ্ন জাগিয়েছে মনে, “মানুষ হতে পেরেছি কি?”। প্রতিটি গল্পই মানুষের ব্যক্তি জীবনের বাস্তবতার সাথে সম্পৃক্ত বিদায় তার মতো অন্য সকলের মনে বইটি খুব দ্রুত জায়গা করে নিবে।

প্রকাশনী সূত্রে জানা গেছে, নিষিদ্ধকথক বইয়ের গল্পগুলো দেশ, সমাজ, পরিবার এমনকি মানুষের ব্যক্তিজীবনে ঘটে চলা এমন কিছু ঘটনার উপাখ্যান, যা আমাদের মনোজগতে চিন্তা-চেতনার খোরাক যোগায়। জাতপাত, শ্রেণীবৈষম্যের কপালে চপেটাঘাত করে মানুষের বিবেকবোধকে জাগ্রত করে এরকম কিছু ম্যাসেজ দিতে চেষ্টা করেছেন লেখক তার অণুগল্পগুলোতে। বইয়ের উল্লেখ্য যোগ্য কয়েকটি গল্পের নাম: উত্তরাধিকার, অস্তিত্ব, বাংলাদেশ, ওরা নক্ষত্র ছোঁবে, জ্বীন, থেমনা, ভাই, অগল্প, খেলনা, আলো, গোপন বিধুর, টক্কর, জাতিস্মর। গল্পগুলো আপনাকে ভাবাবে, জাগ্রত করবে মানবিক চেতনা। লেখক সালাহ উদ্দিন আহমেদ জুয়েল ১৯৮১ সালের ২২ ফেব্র“য়ারি চট্টগ্রাম জেলার আনোয়ারা উপজেলার বটতলি গ্রামের ‘নুর মঞ্জিল’ এ জন্মগ্রহণ করেন।

বাবা আলী আহমেদ ইঞ্জিনিয়ার ও বেগম ফাতেমা আহমেদ এর সন্তান। নেটওয়ার্কিং টেকনোলজিতে এমসিপি (মাইক্রোসফট সার্টিফায়েড প্রফেশনাল) সম্পন্ন করে বর্তমানে একটি প্রাইভেট ফার্মে কর্মরত। আনন্দম প্রকাশনী থেকে বের হওয়া বইটি প্রচ্ছদ করেছেন নবী হোসেন। ঢাকা অমর একুশে বইমেলার ‘ম্যাগনাম ওপাস’ স্টলে বইটি পাওয়া যাচ্ছে এবং চট্টগ্রামের বই মেলায় ‘পেন্সিল’ স্টলে এই বইটি পাওয়া যাচ্ছে। বইটির মূল্য রাখা হয়েছে ১৮০ টাকা (২৫% ডিসকাউন্টের পর)। কুরিয়ারের মাধ্যমেও বইটি পাওয়া যাবে। বিকাশ (০১৭৪৩৪৩১৮০৬),রকেট (০১৬১৬০৬৯৬২৩৫)।- প্রেস বিজ্ঞপ্তি

আপনার মতামত দিন...

ক্যালেন্ডার এবং আর্কাইভ