চট্টগ্রাম, , রোববার, ২২ এপ্রিল ২০১৮

‘ঢাকা-চট্টগ্রাম দ্রুতগতির রেলপথ নির্মাণের পরিকল্পনা রয়েছে’

প্রকাশ: ২০১৮-০২-১৫ ২৩:১৬:০৩ || আপডেট: ২০১৮-০২-১৬ ১১:৫৪:২৪

ঢাকা থেকে সরাসরি কুমিল্লা/লাকসাম হয়ে চট্টগ্রাম পর্যন্ত দ্রুতগতির রেলপথ নির্মাণের পরিকল্পনা সরকারের রয়েছে বলে জানিয়েছেন রেলপথ মন্ত্রী মো. মুজিবুল হক।

আজ বৃহ্স্পতিবার সংসদে সরকারি দলের সদস্য বেগম শিরিন নাঈমের টেবিলে উপস্থাপিত তারকা চিহ্নিত প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা জানান।

রেলপথ মন্ত্রী বলেন, দ্রুতগতির রেলপথ নির্মাণের লক্ষ্যে ঢাকা-চট্টগ্রাম ভায়া কুমিল্লা/লাকসাম দ্রুতগতির রেলপথ নির্মাণের জন্য সম্ভাব্যতা সমীক্ষা এবং বিশদ ডিজাইন’ শীর্ষক একটি সমীক্ষা প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। সমীক্ষা প্রকল্পটি গত বছরের ১৮ মার্চ অনুমোদিত হয়েছে। পরামর্শক নিয়োগের লক্ষ্যে ২১ জুন ইওআই আহবান করা হয়েছে। দাখিলকৃত ইওআই প্রস্তাব মূল্যায়ন করে ৬টি প্রতিষ্ঠানের সংক্ষিপ্ত তালিকা প্রস্তুত করা হয়।

তিনি জানান, গত বছরের ২৭ নভেম্বর রিকোয়েস্ট ফর প্রপোজাল (আরএফপি) ইস্যু করা হয়েছে এবং তা গত ২৯ জানুয়ারি দাখিল করা হয়। বর্তমানে দাখিলকৃত আরএফপি মূল্যায়নাধীন রয়েছে।

মুজিবুল হক বলেন, প্রকল্পের আওতায় নির্মিতব্য রেলপথ ঢাকা থেকে দাউদকান্দি বুপজেলা হয়ে কুমিল্লা প্রবেশ করবে এবং ঢাকা-চট্টগ্রাম রেলপথের বর্তমান দূরত্ব ৩২১ কিলোমিটার থেকে ৯০ কিলোমিটার হ্রাস পাবে। অর্থাৎ এই রুটের দৈর্ঘ্য হবে ২৩১ কিলোমিটার দ্রুতগতির রেলপথটি নির্মিত হলে ঢাকা ও চট্টগ্রামের মধ্যে ভ্রমণ সময় অনেকাংশে হ্রাস পাবে।

তিনি জানান, ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম পর্যন্ত বিশ্বরোডের পাশ দিয়ে নতুন দ্বিতীয় মেঘনা সেতু এবং দাউদকান্দি মেঘনা-গোমতি সেতুর ওপর দিয়ে রেললাইন নির্মাণ করার কোনো পরিকল্পনা সরকারের নেই।

আপনার মতামত দিন...

আপনার মতামত দিন...

ক্যালেন্ডার এবং আর্কাইভ

Open

Close