চট্টগ্রাম, , বুধবার, ২৫ এপ্রিল ২০১৮

চট্টগ্রামে বঙ্গবন্ধুর জন্মবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে যাওয়ায় বিএনপি নেতাকে নোটিশ

প্রকাশ: ২০১৮-০৩-১৮ ১৯:৪৭:৪৪ || আপডেট: ২০১৮-০৩-১৮ ২৩:৫১:২৬

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মবার্ষিকীর কর্মসূচিতে অংশ নেওয়ায় চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির এক নেতাকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়েছে দলটি।

আজ ১৮ মার্চ দুপুরে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ন মহাসচিব এ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী স্বাক্ষরিত এ কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয়া হয়েছে। এতে লেখা হয়, প্রতি, জনাব মো. আজম, সভাপতি চান্দগাও থানা বিএনপি, চট্টগ্রাম মহানগর। বিষয় কারণ দর্শাও নোটিশ।

প্রিয় সহকর্মী,

আপনার বিরুদ্ধে সুনিদ্দিষ্ট অভিযোগ উঠেছে যে আপনি ১৭ মার্চ ২০১৮ চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান ও নগর আওয়ামী লীগের কোষাধক্ষ্য এম এ সালামের সাথে একটি রাজনৈতিক অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছেন যা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছবিসহ ব্যাপকভাবে প্রচারিত হয়েছে।

এ ছাড়া আওয়ামী লীগের সাথে যোগ সাজসরে মাধ্যমে দলীয় শংখলা পরিপন্থি কাজে লিপ্ত থাকার প্রমাণ পাওয়া গেছে। সে কারণে আপনার বিরুদ্ধে কেন শাস্তিমূলক সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া হবে না তার কারণ দর্শিয়ে আগামী ৩ দিনের মধ্যে মাননীয় মহাসচিব বরাবরে কেন্দ্রিয় দপ্তরে লিখিত ভাবে জানাতে নিদেশ করা হল।

এ আদেশ অবিলম্বে কার্যক্রর হবে।

নোটিশ পাওয়া ওই নেতা বলছেন, জাতির জনকের জন্মবার্ষিকীর জন্য নয়, সেখানে তিনি গিয়েছিলেন স্কুলের বার্ষিক পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে।

উল্লেখ্য, শনিবার নগরীর মোহরায় চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (সিডিএ) পরিচালানাধীন সিডিএ গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজে ওই অনুষ্ঠান হয়। বাংলাদেশের স্বাধীনতা আন্দোলনের নেতা শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৮তম জন্মবার্ষিকী এবং জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভার পাশাপাশি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটির বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরস্কারও দেওয়া হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সিডিএ চেয়ারম্যান ও নগর আওয়ামী লীগের কোষাধ্যক্ষ আবদুচ ছালাম। সেখানে বক্তব্য রাখেন চান্দগাঁও থানা বিএনপির সভাপতি ও মোহরা ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মো. আজম।বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন উপলক্ষে কেক কাটার সময় সিডিএ চেয়ারম্যান আবদুচ ছালামের পাশেই ছিলেন এই বিএনপি নেতা।

ওই অনুষ্ঠানের একটি ছবি ফেইসবুকে ছড়িয়ে পড়ার পর রোববার আজমকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয় বিএনপি।

এ বিষয়ে বিএনপি নেতা আজম বলেন, “জনপ্রতিনিধি হিসেবে আমি এলাকার সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজিং কমিটির সদস্য। বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা এবং পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানের দাওয়াত পেয়ে সেখানে যাই। আমি একটি রাজনৈতিক দল করি। যদি জানতাম সেখানে শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মদিনের অনুষ্ঠান হবে, তাহলে কি আমার পক্ষে যাওয়া সম্ভব হত?”

আপনার মতামত দিন...

ক্যালেন্ডার এবং আর্কাইভ

Open

Close