চট্টগ্রাম, , সোমবার, ২৩ এপ্রিল ২০১৮

পদত্যাগ করলেন মিয়ানমারের প্রেসিডেন্ট

প্রকাশ: ২০১৮-০৩-২১ ১২:৩৪:৫৮ || আপডেট: ২০১৮-০৩-২১ ১২:৩৪:৫৮

মিয়ানমারের প্রেসিডেন্ট থিন কিউ পদত্যাগ করছেন। দায়িত্ব গ্রহণের দুই বছরের মাথায় তিনি পদত্যাগ করলেন। বুধবার তাঁর কার্যালয় থেকে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে। খবর বার্তা সংস্থা এএফপির।

চলতি দায়িত্ব-কর্তব্য থেকে বিশ্রাম নিতেই ৭১ বছর বয়সী থিন কিউয়ে পদত্যাগ করেছেন বলে মিয়ানমার রাষ্ট্রপতির কার্যালয়ের পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে। মিয়ানমারের সংবিধানের ৭৩ (বি) ধারা অনুযায়ী, সাত কর্মদিবসের মধ্যে রাষ্ট্রপতির পদ পূরণ করতে হবে।

অন্যদিকে বিবিসির একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত কয়েক মাস ধরেই টিন চয়ের স্বাস্থ্যের অবস্থা খারাপের দিকে যাচ্ছিল। সেজন্য রাষ্ট্রীয় বিভিন্ন অনুষ্ঠানে তাকে নিয়মিত দেখা যায়নি। মিয়ানমারের রাষ্ট্রপ্রধান হিসেবে থিন দায়িত্ব পালন করে এলেও কার্যত সরকার চালিয়ে আসছিলেন মিয়ানমারের নেত্রী অং সান সু চি।

দীর্ঘ সামরিক শাসনের পর ২০১৫ সালের ঐতিহাসিক নির্বাচনে জিতে মিয়ানমারের নোবেলজয়ী নেত্রী অং সান সুচির দল ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্রেসি পার্টি (এনএলডি) ক্ষমতায় আসে। কিন্তু বিদেশি নাগরিককে বিয়ে করায় মিয়ানমারের সংবিধান অনুযায়ী প্রেসিডেন্ট হওয়ার সুযোগ ছিল না সু চির। ফলে দীর্ঘদীনের ঘনিষ্ট বন্ধু বিশ্বস্ত উপদেষ্টা থিন কিউকে রাষ্ট্রপতি হিসেবে বেছে নেন সু চি। যদিও এই পদ ছিল অনেকটাই আনুষ্ঠানিক। ২০১৬ সালের ৩০ জুন থিন কিউ রাষ্ট্রপতির শপথ নেন।

আপনার মতামত দিন...

ক্যালেন্ডার এবং আর্কাইভ

Open

Close