চট্টগ্রাম, , শনিবার, ২১ এপ্রিল ২০১৮

চট্টগ্রামে বিজ্ঞান কলেজের অধ্যক্ষকে মারধর, ভিডিও ভাইরাল

প্রকাশ: ২০১৮-০৪-০৩ ১১:০২:২০ || আপডেট: ২০১৮-০৪-০৩ ১৭:৩৭:৫১

চট্টগ্রাম বিজ্ঞান কলেজের অধ্যক্ষ জাহেদ খানকে ছাত্রলীগ নেতার মারধরের ভিডিও ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়েছে স্যোশাল মিডিয়ায়। ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, মহানগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুল আজিম রনি ও তার অনুসারীরা অধ্যক্ষকে পেটাতে পেটাতে তার অফিস রুমে নিয়ে আসছেন।

সেখানে পুলিশের উপস্থিতিতে দেন দরবারও হচ্ছে।

জানা গেছে, নগর ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক নুরুল আজিম রনি তার অনুসারীদের নিয়ে শনিবার দুপুরে বিজ্ঞান কলেজের ক্যাম্পাসে যান। তিনি ওই কলেজের প্রতিষ্ঠাতা ও অধ্যক্ষের কক্ষে গিয়ে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে উন্নয়ন ফির নামে অতিরিক্ত ৫ হাজার টাকা আদায় করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেন।

এই টাকা আদায় অবৈধ ও ফেরত দেয়ার দাবি জানান তিনি। দীর্ঘক্ষণ তা নিয়ে তাদের মধ্যে বাকবিতণ্ডা হয়। এক পর্যায়ে নুরুল আজিম রনি অধ্যক্ষ জাহেদ খানকে ঘুষি মারেন। তার অনুসারীরাও তাকে মারধর করেন।

এ বিষয়ে নুরুল আজিম রনি সাংবাদিকদের বলেন, কলেজের অধ্যক্ষ এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে ফি হিসেবে আদায় করা বাড়তি ৫ হাজার টাকা ফেরত দেয়ার কথা দিয়েছিলেন। ৩১ মার্চ তার ওই টাকা ফেরত দেয়ার কথা ছিল। সেদিন অভিভাবকরা কলেজে গিয়েও টাকা ফেরত না পেয়ে আমাকে জানায়। আমি গেলে অধ্যক্ষ পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। পরে আমরা তাকে অফিস কক্ষে বসিয়ে কথা বলি। আদায় করা বাড়তি ফি ফেরত দিতে বাধ্য করি।

শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে বাড়তি ফি আদায় বিষয়ে আত্মপক্ষ সমর্থন করে চট্টগ্রাম বিজ্ঞান কলেজের অধ্যক্ষ ড. জাহেদ খান বলেন, ‘ভর্তির সময় আমাদের সঙ্গে শিক্ষার্থীদের চুক্তি হয়। চুক্তি অনুযায়ী, মাসিক টিউশন ফি ও পরীক্ষার ফি ছাড়া আমরা বছরে আড়াই হাজার টাকা করে দুই বছরে পাঁচ হাজার টাকা উন্নয়ন ও বিবিধ ফি দেবে শিক্ষার্থীরা। এই শর্ত মেনেই শিক্ষার্থীরা আমাদের প্রতিষ্ঠানে ভর্তি হয়েছে। আমরা তাদের কাছ থেকে ওই টাকাই নিয়েছি।’

এ বিষয়ে জানতে চাইলে চকবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নুরুল হুদা গণমাধ্যমকে বলেন, ‘শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে বাড়তি ফি নেওয়ার যে দাবি ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে করা হয়েছে, সেটা যৌক্তিক।’

আপনার মতামত দিন...

আপনার মতামত দিন...

ক্যালেন্ডার এবং আর্কাইভ

Open

Close