চট্টগ্রাম, , বুধবার, ২৫ এপ্রিল ২০১৮

মহিউদ্দীনের কুলখানিতে নিহতদের ৩ স্বজনকে চাকরি দিল সিভাসু

প্রকাশ: ২০১৮-০৪-০৭ ১৭:৪০:৩৩ || আপডেট: ২০১৮-০৪-০৭ ১৭:৪০:৩৩

চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ও চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র এ বি এম মহিউদ্দীন চৌধুরীর কুলখানিতে পদদলিত হয়ে নিহতদের দুইজনের স্বজনকে স্থায়ী এবং একজনকে অস্থায়ী চাকরি দিয়েছে চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ও এনিম্যাল সাইন্সেস বিশ্ববিদ্যালয় (সিভাসু)।

শনিবার বেলা ১১টায় উপাচার্যের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সিন্ডিকেটের ৩৯তম অধিবেশনে নিহত কৃষ্ণপদ দাশের স্ত্রী চন্দনা দাশ (অফিস সহায়ক), ঝন্টু দাশের স্ত্রী লাকী দাশের (ল্যাব এটেনডেন্ট) চাকরি স্থায়ীকরণের বিষয়টি অনুমোদিত হয়েছে।

এছাড়াও সত্যব্রত ভট্টাচার্য্যরে স্ত্রী প্রিয়াংকা শর্মা’র (ল্যাব টেকনিশিয়ান) অস্থায়ী চাকরি অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত বছর ১৮ ডিসেম্বর রীমা কনভেনশন সেন্টারে পদদলিত হয়ে নয় জন নিহত হয়। তাদের মধ্যে ৩ জনের পরিবারকে চাকরি দিল সিভাসু।

প্রসঙ্গত, গত বছর ২০ ডিসেম্বর একটি জাতীয় দৈনিকে দুই শিশু সন্তানসহ অসহায় চন্দনা দাশের ছবি প্রকাশিত হলে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ওইদিনই চন্দনাকে অফিস সহায়ক পদে অস্থায়ীভাবে নিয়োগ দেন। এর দুইদিন পর ঝন্টু দাশের স্ত্রী লাকী দাশকেও অস্থায়ী চাকরি দেয়া হয়।

পরবর্তীতে তাদের চাকরি স্থায়ীকরণের বিষয়টি আজকের সিন্ডিকেট অধিবেশনে উপস্থাপন করা হলে সর্বসম্মতভাবে অনুমোদন দেয়া হয়।

প্রিয়াংকা শর্মা’র চাকরি পরবর্তীতে স্থায়ী করা হবে।

সিন্ডিকেট অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. গৌতম বুদ্ধ দাশ।

অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সদস্য প্রফেসর ড. মো. আখতার হোসেন, প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. অনুপম সেন, পোর্ট সিটি ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির উপাচার্য প্রফেসর ড. নুরল আনোয়ার, চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এম এ সালাম, প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ডা. মো. আইনুল হক, ফিশারিজ অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. এম. নুরুল আবছার খান, ভেটেরিনারি মেডিসিন অনুষদের ডিন প্রফেসর মো. আব্দুল হালিম, ফার্মাকোলজি বিভাগের প্রফেসর ড. এ কে এম সাইফুদ্দীন, প্যাথলজি ও প্যারাসাইটোলজি বিভাগের প্রফেসর ড. মো. মাসুদুজ্জামান, ভেটেরিনারি ক্লিনিকস পরিচালক প্রফেসর ড. ভজন চন্দ্র দাস, রেজিস্ট্রার ও সিন্ডিকেটের সদস্য সচিব মীর্জা ফারুক ইমাম।

অধিবেশনের শুরুতে এ বি এম মহিউদ্দীন চৌধুরী ও সিন্ডিকেট সদস্য স্থপতি তসলিমউদ্দিন চৌধুরীর ইন্তেকালে এবং ১২ মার্চ নেপালে ইউএস-বাংলার ফ্লাইট বিধ্বস্ত হয়ে নিহতদের প্রতি গভীর সমবেদনা ও শোক প্রস্তাব অনুমোদিত হয়।

আপনার মতামত দিন...

ক্যালেন্ডার এবং আর্কাইভ

Open

Close